Follow by Email

Search This Blog

Loading...

Thursday, 28 June 2007

মুক্তিযুদ্ধ, বিদেশী মিডিয়ার চোখেঃ ৩

*মেয়েটি ৩ মাসের অন্তঃস্বত্বা ছিল। সরকারী বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী। এই মেয়েটি তার সহপাঠিনী বান্ধবীদের সাথে ইশকুল যাওয়ার পথে পাকিস্তানী সৈন্যরা রাস্তা থেকে উঠিয়ে নিয়ে যায়। ৪-৫ মাস পরে তাকে ছেড়ে দেয়। (গার্ডিয়ান লন্ডন, ৬ মার্চ, ১৯৭২)

*মিসেস জেড বী (আসল নাম গোপন রাখা হয়েছে), বয়স বিশ। গৃহ পরিচারিকা। তার দূর সম্পর্কের চাচা স্থানীয় শান্তি কমিটির কর্মী, তাকে পাকিস্তানী মিলিটারীর হাতে তুলে দেয়। এই লোকের কাজ ছিল মিলিটারির জন্য মেয়ে যোগাড় করে দেয়া। এই জেড বীকে ৭ টি মেয়ের সঙ্গে একটি তাবুতে ১ মাস রাখা হয়। পাশেই ছিল আরেকটি তাবু। সেখানে ৮জন মেয়েকে রাখা হয়েছিল। মেয়েদেরকে তাবুতে উলঙ্গ করে রাখা হতো যাতে এরা পালিয়ে যেতে না পারে। (গার্ডিয়ান লন্ডন, ৬ মার্চ, ১৯৭২)

*যুদ্ধের সময় পাকিস্তানী সৈন্যরা ৩ লাখ নারীকে ধর্ষণ করেছে। এর মধ্যে অন্তঃস্বত্তা রয়েছে ২৫ হাজার। (দি পকা অষ্ট্রেলিয়া, ১৫ জুন, ১৯৭২)

*১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চ বাঙ্গালী দমনের নামে পাকিস্তানী সৈন্যরা শুরু করে বর্বরোচিত সামরিক অভিযান। ভারতের দালাল ও স্বাধীনতা আন্দোলনের উস্কানীদাতা হিসাবে অভিযুক্ত করে, ঢাকার হিন্দু অধ্যুষিত শাখারী পট্টির ৩০ হাজার বাসিন্দাদের ৮ হাজারকেই তারা হত্যা করে। হাজার হাজার নারীকে ধর্ষণ করে। ১৩ বছরের কিশোরীকেও রাখা হয় ক্যান্টনমেন্টে এবং চালানো হয় শারিরীক অকথ্য নির্যাতন। ১২ বছরের মেয়েও ছিল তাদের মধ্যে। (ন্যাশনাল জিওগ্রাফি ইউএসএ, সেপ্টেম্বর, ১৯৭২)


তথ্য ঋণঃ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ, অষ্টম খন্ড, বিচিন্তা/ ১৩.১২.১৯৯১

No comments: